You are here
Home > ফ্রিল্যান্সিং গাইড > ফ্রিল্যান্সিং এর বই ইন্টারনেট থেকে আয়ের জন্য কতটুকু সহায়তা করে?

ফ্রিল্যান্সিং এর বই ইন্টারনেট থেকে আয়ের জন্য কতটুকু সহায়তা করে?

ফ্রিল্যান্সিং শেখার বই

নিজের দক্ষতাকে পুঁজি করে স্বাবলম্বী হওয়ার প্রচেষ্টায় প্রতিনিয়ত হাজার হাজার তরুণ ঝুকছে ফ্রিল্যান্সিং পেশায়। তবে শুধু কোনো একটি বিষয়ে নিজের দক্ষতাকে পুঁজি করে একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হওয়া যায় না। একজন ফ্রিল্যান্সারের নির্দিষ্ট একটি স্কিল ছাড়াও প্রয়োজন হয় কিছু সফট স্কিলের। যেমন, ক্লায়েন্টের সাথে যোগাযোগ দক্ষতা, ইংরেজি ভাষাগত দক্ষতা, আইকিউ, নেটওয়ার্কিং, টাইম ম্যানেজমেন্ট সহ আরো বিভিন্ন বিষয়ে পারদর্শী হতে হয়।

প্রযুক্তির ধরনের পরিবর্তনের সাথে একজন ফ্রিল্যান্সারের পারদর্শীতার ক্ষেত্রটিতেও ভিন্নতা এবং বৈচিত্র্যতা আনতে হয়। তাই আপনি কোন বিষয়টিতে কাজ করতে চান সেই ক্ষেত্রটিকে চিহ্নিত করে ঐ বিষয়ক সম্যক ধারণা অর্জন করতে হবে। আর এক্ষেত্রে বই অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কোনো একটি বিষয়ে সূক্ষ্ণ ধারণা লাভ করতে বইয়ের বিকল্প নেই। তাছাড়া ফ্রিল্যান্সিং এক মহাসমুদ্র। আপনি কিভাবে শুরু করবেন,কোথায় কাজ পাবেন এ বিষয়ে কূলহারা হয়ে পড়তে পারেন। তাই ফ্রিল্যান্সিং গাইডলাইন বিষয়ক বিভিন্ন বই এর মাধ্যমে এ সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা পেতে পারেন।

বই আপনার সহায়ক হিসেবে ভূমিকা পালন করতে পারে। তবে শুধু বই থেকে প্রাপ্ত জ্ঞান,গবেষণা,টিপস,ট্রিকস এর মাধ্যমেই আপনি কোনো একটি বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ দক্ষতা লাভ করতে পারবেন নাহ। আপনার কাজ এবং অভিজ্ঞতার মাধ্যমেই দক্ষতা বাড়বে। কাজ করার সময় বিভিন্ন ভূল-ত্রুটি থেকে শিক্ষা নেওয়ার মাধ্যমেই দক্ষতা বাড়াতে পারবেন। এছাড়াও ভিডিও,ব্লগ,জার্নাল ইত্যাদির মাধ্যমে আপনার স্কিল ডেভেলপমেন্ট করতে পারেন। অনেকক্ষেত্রে একজন দক্ষ মেন্টর এই সংক্রান্ত বিষয়ে বেশি ভূমিকা পালন করতে পারেন। তাই শুধু বই নির্ভরশীল না হয়ে অন্যান্য রিসোর্স থেকেও আপনি ধারণা নিতে পারেন।

ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক প্রাথমিক ধারণা এবং খুটিনাটি বিষয় সম্পর্কে জানতে প্রথমেই আপনি কিছু বই পড়ে নিতে পারেন। এতে করে কম সময়ে সহজভাবে এ বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিতে পারবেন। বাজারে বিভিন্ন লেখকের বিভিন্ন ধরনের বই পাওয়া যায়। আপনার পছন্দ অনুযায়ী যে কোনো বই থেকেই আপনি প্রাথমিক ধারণা নিতে পারেন। তবে আপনাদের সুবিধার্থে এখানে আপনাদের জন্য উপকারী হবে এমন কিছু বইয়ের নাম উল্লেখ করা হলো-

ফ্রিল্যান্সিং এর ক্ষেত্র এবং পরিধি অনেক বিস্তর। তাই বিভিন্ন ক্ষেত্র অনুযায়ী সহায়ক বই এবং পাশাপাশি দরকারী বিষয়গুলো আলোচনা করা হয়েছে। আজ আমরা আলোচনা করবো ফ্রিল্যান্সারদের জন্য বহুল সমাদৃত সেরা ৫ টি ইংরেজি এবং বাংলা বই সম্পর্কে। এবং আলোচনা করবো ডিজিটাল মার্কেটিং, সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশনকন্টেন্ট রাইটিং এর জন্য সহায়ক কিছু বই নিয়ে।

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য বহুল সমাদৃত সেরা ৫ টি বইঃ

  • The Four Hour Workweek
  • Author: Timothi Ferriss
  • The E-Myth Revisited
  • Author: Michael Gerber
  • 100 Tips For Making Your First $100K
  • Author: Ross Simmonds and Alex Vaughan
  • The Freelancer’s Bible
  • Author: Sara Horowitz and Toni Sciarra Poynter
  • Creative,Inc.
  • Author: Joy Cho and Meg Mateo Ilasco

এছাড়াও বাংলা ভাষায় রয়েছে ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক চমৎকার কিছু বইঃ

  • হাবলুদের ফ্রিল্যান্সিং
  • লেখকঃ জয়িতা ব্যানার্জী
  • ফ্রিল্যান্সিং গুরু: অনলাইন আয়ের চাবিকাঠি
  • লেখকঃ মো: ইকরাম
  • আউটসোর্সিং: শুরুটা যেভাবে এবং শুরু করার পর
  • লেখকঃ মো: আমিনুর রহমান
  • ফ্রিল্যান্সিং: ইন্টারনেট থেকে আয়
  • লেখকঃ ফ্রিল্যান্সার নাসিম
  • দ্যা ফ্রিল্যান্সার
  • লেখকঃ মো: আমিনুর রহমান

ডিজিটাল মার্কেটিং

সময়ের পরিক্রমায় তথ্য প্রযুক্তির বদৌলতে স্বল্প ব্যয়ে,কম পরিশ্রমে কাঙ্খিত গ্রাহকদের নিকট নিজের পণ্য বা সেবা পৌছে দেওয়ার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং।

ডিজিটাল মার্কেটিং একটি ক্রমাগত বিকশিত ক্ষেত্র। মানুষের রূচি,প্রযুক্তির পরিবর্তন অনুযায়ী ডিজিটাল মার্কেটিং এর পদ্ধতিতেও পরিবর্তন আনতে হয়। তাই এই শাখায় কাজ করতে হলে আপনাকে সবসময় সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে নিজেকে আপডেট রাখতে হবে।

বই আপনাকে ব্যসিক ধারণা দেওয়ার পাশাপাশি ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভিন্ন প্রকার বিষয় যেমন,সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং,ই-মেইল মার্কেটিং থেকে শুরু করে যেকোনো বিষয়ে বুঝতে পরিপূর্ণ সহায়তা করতে পারে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এ সাফল্য পেতে হলে চিন্তাশীল মনন,কাস্টমার এনগেজ কৌশল,কাস্টমারের সাইকোলজি সহ বিভিন্ন বিষয়ে ধারণা রাখতে হয়।এর জন্য বই পড়ার কোনো বিকল্প নেই। বই আপনাকে এই বিষয়গুলো সূক্ষ্ম ভাবে বুঝে উঠতে সহায়তা করবে। এছাড়াও বই পারিপার্শ্বিক বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে অবগত করবে।



 

ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার জন্য বহুল সমাদৃত সেরা ৫ টি বইঃ

  • Jab, Jab, Jab, Right Hook: How to Tell Your Story in a Noisy World
  • Author: Gary Vaynerchuk
  • Digital Marketing for Dummies
  • Author: Ryan Deiss
  • Purple Cow: Transform Your Business by Being Remarkable
  • Author: Seth Godin
  • Marketing 4.0: Moving from Traditional to Digital
  • Author: Philip Kotler
  • The Power of Visual Storytelling: How to Use Visuals, Videos, and Social Media to Market Your Brand
  • Author: Ekaterina Walter

এছাড়াও রয়েছে ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর বাংলা ভাষায় লেখা চমৎকার কিছু বইঃ

  • গ্রোথ হ্যাকিং মার্কেটিং
  • লেখকঃ মুনির হাসান
  • আমি একজন সেলসম্যান
  • লেখকঃ তানভীর শাহরিয়ার রিমন
  • ইমোশনাল মার্কেটিং
  • লেখকঃ মুনির হাসান
  • ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে হাতেখড়ি
  • লেখকঃ মুনতাসির মাহমুদ
  • নিজের ভাষায় ব্রান্ডিং
  • লেখকঃ তৌফিকুর রহমান

এছাড়াও বিশ্বে টপ সেলার সহ বাংলা ভাষায় অনূদিত অসংখ্য বই রয়েছে।আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক বইটা পছন্দ করে জেনে নিতে পারেন ডিজিটাল মার্কেটিং এর খুঁটিনাটি বিষয়সমূহ।

তবে যেহেতু ডিজিটাল মার্কেটিং ক্রমাগত বিকশিত একটি ক্ষেত্র।তাই একজন ডিজিটাল মার্কেটারকে নিত্যনতুন বিষয় সম্পর্কে সবসময় আপডেট থাকতে হয়। এজন্য বিভিন্ন ব্লগ,ভিডিও,নিউজ ইত্যাদি দেখে এবং বুঝে নিজেকে প্রতিনিয়ত একধাপ এগিয়ে রাখতে হয়। নতুবা সাফল্যের পথ কর্কশ হয়ে যায়। আর সর্বোপরি প্র্যাকটিক্যাল কাজের অভিজ্ঞতাই আপনাকে ভুল-ত্রুটি শুধরে উঠে একজন ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে আপনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে সাহায্য করবে।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO)

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) হচ্ছে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের সার্চ রেজাল্টে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটটি অন্য সাইটকে পেছনে ফেলে সবার আগে প্রদর্শিত হতে পারে।মূলত একটি ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের কাছে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলাই হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজ।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন অর্থাৎ SEO এর ক্ষেত্র ও পরিধি অনেক বিস্তৃত।ভিডিও, ইমেজ, ওয়েবপেইজ, পিডিএফ সহ ইত্যাদি বিভিন্ন তথ্য ক্রলিং এবং ইনডেক্সি এর মাধ্যমে SEO কাজ করে থাকে। ইউজারের জন্য বেশি উপযোগী তথ্যটিই এর মাধ্যমে খুঁজে বের করা হয়।আর এই বিষয় সম্পর্কে ব্যসিক ধারণা থেকে শুরু করে SEO এর বিভিন্ন বিষয় যেমন, ওয়েব এনালাইটিক্স,লিংক বিল্ডিং,সোশ্যাল বুকমার্কিং ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ে ধারণা পেতে বই বহুলাংশেই সহায়তা করে থাকে।

SEO এর জন্য প্ল্যান, প্রাথমিক ধারণা, ফাংশনাল প্রসেস, কিওয়ার্ড রিসার্চ, কিওয়ার্ড এনালাইসিস, কিওয়ার্ড সিলেকশন, SEO অনুকুল ওয়েবসাইট তৈরী সহ বিভিন্ন বিষয় ভালোভাবে জানতে SEO সম্পর্কিত বিভিন্ন বই এর বিকল্প নেই।আপনার কাজ করার ক্ষেত্র অনুযায়ী প্রয়োজনীয় বইটি থেকে জ্ঞান লাভ করতে পারেন। এবং সেই প্রাপ্ত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে হয়ে উঠতে পারেন একজন সফল সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শেখার জন্য বহুল সমাদৃত সেরা ৫ টি বইঃ

  • The Art of SEO
  • Author: Eric Enge, Jessie C. Stricchiola, and Stephan Spencer
  • Search Engine Optimization All – in – One for Dummies
  • Author: Bruce Clay and Susan Esparza
  • How to Get to the Top of Google
  • Author: Tim Kitchen
  • Ultimate Guide to Link Building
  • Author: Garrett French
  • SEO for Growth
  • Author: John Jantsch and Phil Singleton

এছাড়াও রয়েছে SEO বিষয়ক বাংলা ভাষায় লেখা চমৎকার কিছু বইঃ

  • সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন / মার্কেটিং
  • লেখকঃ মাহবুবুর রহমান ও রাজিব আহমেদ
  • মাস্টারিং এসইও
  • লেখকঃ মোঃ মাজহারুল হক
  • সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন
  • লেখকঃ মোঃ মিজানুর রহমান

SEO এর পরিধি বিস্তর এবং গতিশীল। আর কিওয়ার্ডই হচ্ছে এর প্রাণ। তাই আপনার বুদ্ধিমত্তা এবং দক্ষতাই পারে আপনাকে এই খাতে সাফল্য এনে দিতে পারে। তাই শুধু বই নির্ভর হলেই আপনি রাতারাতি এ খাতে সাফল্য পেয়ে যাবেন না। কিংবা একটি অথবা দুইটি বই পড়েই আপনি SEO এর সব কিছু জানতে পারবেন না।

তাই আপনার যে নির্দিষ্ট বিষয়টি শেখা প্রয়োজন সেই বিষয়টি গুগল,ইউটিউব কিংবা যেকোনো মেন্টরের মাধ্যমে ও শিখে নিতে পারেন। তবে সর্বোপরি আপনার অভিজ্ঞতা ও কর্মদক্ষতাই আপনাকে একজন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারবে।

 

কন্টেন্ট রাইটিং 

সৃজনশীলতার মিশ্রণে সহজ এবং প্রাণবন্ত ভাষার ব্যবহারের মাধ্যমে ক্লায়েন্টের পছন্দমতো কন্টেন্ট এর যোগান দেওয়াই হচ্ছে একজন দক্ষ কন্টেন্ট রাইটার এর কাজ। কোনো পণ্যের বর্ণনা,পণ্যের রিভিউ লেখা থেকে শুরু করে ট্রান্সক্রিপশন,ট্রান্সলেশন সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে একজন কন্টেন্ট রাইটার কাজ করে থাকেন। ওয়েব কন্টেন্ট ছাড়াও ম্যাগাজিন,সংবাদপত্র সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নানান কাজের জন্য প্রয়োজন হয় কন্টেন্ট রাইটারের।

কন্টেন্ট রাইটিং শেখার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো লেখালেখির চর্চা। আর লেখার ধরনে বৈচিত্র্য ও শুদ্ধভাবে গুছিয়ে লেখার জন্য প্রয়োজন প্রচুর পরিমাণ পড়াশোনা। তাই আপনি যদি কন্টেন্ট রাইটার হতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে বেশি বেশি বই পড়ার অভ্যাস করতে হবে।এবং আপনি যে বিষয়ে লেখালেখি করতে চান সে সম্পর্কে বিস্তর ধারণা থাকতে হবে।ঐ বিষয়ে গবেষণা করতে হবে।

অনেকে লেখালেখিতে বিশেষ পটু হলেও কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবে। কিংবা একটি সাধারণ লেখা আর কন্টেন্ট রাইটিং এর মধ্যে তফাত কি এসব সম্পর্কে অবগত নয়।যার ফলে ফ্রিল্যান্স কন্টেন্ট রাইটিং টা একটা ধোয়াশার মতো কাজ করে তাঁর জন্য। তাই এ বিষয়ে সমাধান পেতে হলে প্রথমেই কন্টেন্ট রাইটিং সম্পর্কিত কিছু বই পড়া আবশ্যক।

কন্টেন্ট রাইটিং শেখার জন্য বহুল সমাদৃত সেরা ৫ টি বইঃ

  • Everybody Writes
  • Author: Ann Handley
  • Make Money As a Freelance Writers
  • Author: Sally Miller and Gina Horkey
  • Content Writing Step – By – Step
  • Author: Joseph Robinson
  • Writing for the Web
  • Author: Lynda Felder
  • On Writing Well
  • Author: William Zinsser

এছাড়াও কন্টেন্ট রাইটিং শেখার জন্য রয়েছে বাংলা ভাষায় চমৎকার কিছু বইঃ

  • কন্টেন্ট রাইটিং
  • লেখকঃ কৌশিক ভট্টাচার্য
  • থিংকিং এন্ড রাইটিং
  • লেখকঃ এস. এম. জাকির হুসাইন

একজন কন্টেন্ট রাইটার হিসেবে সফল হতে হলে আপনার লেখায় নিজস্ব স্টাইল আনা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে বিভিন্ন বিষয়ের উপর বিভিন্ন লেখকের বই পড়ার অভ্যেস গড়ে তুলতে হবে। সেইসাথে আপনার লেখার বিষয়বস্তু সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ ধারণা পেতে বিভিন্ন ম্যাগাজিন,জার্নাল পড়তে হবে।

উল্লেখিত ক্ষেত্রসমুহ ব্যতীত ও ফ্রিল্যান্সিং এ রয়েছে আরো বিস্তৃত ক্ষেত্র।ক্ষেত্র বিশেষ আপনার পছন্দ অনুযায়ী সঠিক বই নির্বাচন এবং আপনার কর্মদক্ষতার সংমিশ্রণেই আপনি হয়ে উঠতে পারবেন একজন সফল ফ্রিল্যান্সার।

Facebook Comments
Top