You are here
Home > অনলাইন ইনকাম > শেয়ার বাজার এর বর্তমান অবস্থা এবং যেভাবে বিনিয়োগ করবেন

শেয়ার বাজার এর বর্তমান অবস্থা এবং যেভাবে বিনিয়োগ করবেন

শেয়ার বাজার

 

শেয়ার বাজার সম্পর্কে ভালোভাবে না জেনে অনেকে শেয়ার বাজারে কাজ করার কথা চিন্তা করে শেয়ার বাজারের শেয়ার ক্রয় করে থাকেন। যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। আপনার অতিরিক্ত অর্থ অন্যান্য কোম্পানি সাথে করার এই বিজনেস পলিসি নিয়ে কাজ করে আজকাল অনেকেই স্বাবলম্বী হচ্ছে। এক্ষেত্রে শেয়ার পেলে লাখ টাকা না পেলে কোন টাকাই পাওয়া যায়। যার কারণে এই সেক্টরে ঝুঁকির পরিমাণও বেশি। এক্ষেত্রে শেয়ার বাজার সম্পর্কে জেনে বুঝে তবেই কাজে নামা উচিত। সুতরাং আজ আমরা জানবো শেয়ার বাজারের বর্তমান অবস্থা এবং শেয়ার বাজারে যেভাবে বিনিয়োগ করবেন সে সম্পর্কে। চলুন আলোচনায় যাওয়া যাক।

শেয়ার কেনার সময় কোন ভুলগুলো করা যাবেনা জানতে পড়ুনঃ

 

বিনিয়োগের পূর্বে যে সকল বিষয়ে আপনার মাথায় রাখতে হবে

শেয়ার বাজারের মূল কাজ হলো বিনিয়োগ করা। এক্ষেত্রে বিনিয়োগের পূর্বে যে সকল বিষয়ে আপনার মাথায় রাখতে হবে সে-সকল বিষয় সম্পর্কে না জেনে আপনি কিন্তু কাজ শুরু করতে হবে। যেহেতু আপনি শেয়ার কেনার মাধ্যমে কোন কোম্পানিতে ইনভেস্ট করবেন সেহেতু ভবিষ্যত সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা করে তবেই বিনিয়োগ করা উচিত। চলুন জেনে নিই শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের পূর্বে যে সকল বিষয় আপনার মাথায় রাখতে হবে।

 

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা

অনেকে আবার শেয়ার বাজারের শুরুতে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পর্কে মোটেও মাথা ঘামায় না৷ যা একদমই ভুল সিদ্ধান্ত। এ-কথা ঠিক যে শেয়ার বাজার নিয়ে অধিকাংশ মানুষের ধারণা কম থাকার মূল কারণ হলো দেশের অর্থনৈতিক অবস্থাকে গুরুত্ব না দেওয়া কিংবা এ-সম্পর্কে খোঁজ-খবর না রাখা। সুতরাং বিনিয়োগকারীকে এই খাতটি সম্পর্কে মোটেও অজ্ঞ থাকা যাবে না৷ জানতে হবে দেশের চলমান অর্থনৈতিক অবস্থা কিভাবে চলছে এবং শেয়ারবাজারের বর্তমান অবস্থা কোন মেথড মেনে চলছে সে-সম্পর্কে। পাশাপাশি জানতে হবে বিভিন্ন ক্যাটাগরির স্টক সম্পর্কে। সেই সাথে বিগত বছরগুলোতে শেয়ারবাজারের অবস্থা কেমন ছিলো তা জানা থাকলে তো বাজিমাত! এতে লস হওয়ার আশংকা কম থাকে।

 

শেয়ার বাজারের বর্তমান অবস্থা

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করার প্ল্যান তৈরি করার আগে অবশ্যই শেয়ার বাজারের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানতে হবে। কোন ধাঁচ মেনে শেয়ার বাজারের বর্তমান অবস্থা পরিচালিত হচ্ছে তা সম্পর্কে জানতে হবে, বুঝতে হবে। মনে রাখতে হবে শেয়ার মার্কেটের ওঠানামা এক দুর্বোধ্য ব্যাপার। ফলেই কঠিন পরিস্থিতি সামাল দিতে শেয়ার বাজারের বর্তমানে সময়ই শতভাগ কার্যকর ভুমিকা রাখতে সক্ষম। শেয়ার বাজারের বর্তমান অবস্থা যদি মোটামুটি লোকসান-হীন হয় বা উঠে আসা কঠিন মনে হয় তবে আপাতত বিনিয়োগ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। অতি লোভে বিপদ বেশি” কথাটাকে গুরুত্ব দিয়ে সময়কে সুযোগ দিন, বর্তমান শেয়ার বাজার নিয়ে রিসার্চ করুন।

  • যে সেক্টরে বিনিয়োগ করতে চান, তার বর্তমান ও ভবিষ্যত সম্ভাবনা
  • বিগত বছরগুলোতে শেয়ার বাজারের অবস্থা
  • মূলত বিগত বছরগুলোতে শেয়ার বাজারের অবস্থার উপর বর্তমান এবং ভবিষ্যতের শেয়ার বাজারের অবস্থা নির্ভর করবে। 

 

বিভিন্ন ক্যটাগরির স্টক সম্পর্কে ধারণা

কেউ যখন শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করে তখন সে এই খাতের একটি অংশ হিসেবে পরিগণিত হয়। সুতরাং বিভিন্ন ক্যটাগরির স্টক সম্পর্কে ধারণা নিয়ে তবেই শেয়ার বাজারের প্ল্যান হাতে নিতে হবে। আপনার বিভিন্ন ক্যটাগরির স্টক সম্পর্কে ধারণা না নিয়ে কাজে নামার মানেই হলে নিজেকে লসের মুখে ফেলে দিয়ে আসা। যারা বিভিন্ন ক্যটাগরির স্টক সম্পর্কে ধারণা রাখতে চাচ্ছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখা ভালো যে তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে আপডেইটেড থাকা কিন্তু খুব একটা কঠিন কিছু নয়। ধুমধাম ইনভেস্ট না করে অপেক্ষা করুন সবচেয়ে মোক্ষম সময়টিকে কাজে লাগানোর জন্যে।

 

শেয়ার বাজারে সফল হতে করনীয় কি কি?

এবার আমাদের সবকিছু জেনে-বুঝে শেয়ার বাজারের ইনভেস্ট করার আগে শেয়ার বাজারে সফল হতে করনীয় সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। কম পরিশ্রমে, বুদ্ধি খাঁটিয়ে কিছু টিপস অবলম্বন করলেই আপনি নিজেকে সফল হিসেবে শেয়ার বাজার সেক্টরে আবিষ্কার করতে পারবেন। চলুন জেনে নিই সেই ম্যাজিক টিপসগুলি কি কি।

 

দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগ করুন

বিনিয়োগ পরামর্শদাতারা নিয়মিত শেয়ার বাজার করতে চাওয়া প্রতিটি ব্যাক্তিকে সবার আগে যে পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করেন সেই পরামর্শটি হলো দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগ করা। কেননা দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগ করা মানেই শেয়ার বাজারের আসল সুবিধা ভোগ করে। নতুবা বার বার বিনিয়োগ করাটা যেমন অসম্ভব মনে হবে তেমনই বার-বার বিভিন্ন ঝুঁকিতে পড়বে আপনার শেয়ারব বাজার প্ল্যান। সুতরাং স্বল্প সময়ের জন্য বিনিয়োগ করা সিদ্ধান্ত না নিয়ে দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগ করে শেয়ার বাজারের গোপন টিপস ফলো করুন।

 

এক্সপার্ট ট্রেডার এর পরামর্শ নিন

শেয়ার বাজার সফল হয় অভিজ্ঞতার উপরে। যে যত অভিজ্ঞ সে এই সেক্টরে তত সফল। এক্ষেত্রে এক্সপার্ট ট্রেডার এর পরামর্শ নেওয়াটা সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ৷ যদিও তারা আপনার সাথে সব টিপস ফলো করতে চাইবে না। তবে আপনি যদি নিজের বুদ্ধি খাঁটিয়ে তাদের কাছ থেকে গোপন টিপস সম্পর্কে ধারণা নিয়ে নিতে পারেন তবে সফলতার পথটা আরেকটু কাটা মুক্ত মনে হবে। এক্সপার্টরা সামর্থ্য এবং প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী রিটার্ন এবং রিস্ক বিচার করে কিভাবে সঠিক মাধ্যম এবং বিনিয়োগের পরিমাণ ঠিক করেছে তা তাদের কাছ থেকে কৌশলে জেনে নিন। তাদের সাথে ভাব জমিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট এবং অভিজ্ঞতা আদায় করে নিন। তারা কেনো বিনিয়োগ করেছে, কিভাবে করেছে, কোথায় করেছে, কিভাবে বিনিয়োগ করে সফল হয়েছে, কি করতে গিয়ে বিপদে পড়েছে সব তথ্য আদায় করে নিতে এক্সপার্ট ট্রেডার এর পরামর্শ নিন।

 

অধিক লাভের আশায় ভুল সিদ্ধান্ত নিবেন না

অনেকেই অধিক লাভের আশায় ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে। শেয়ার বাজারে সবচেয়ে বেশি ধস নামে লোভের কারণে। অনেকেই লোভে পড়ে অধিক লাভের আশায় ভুল সিদ্ধান্ত নিতে এতোটুকুও ভাবে না। অতিরিক্ত টাকা ইনভেস্ট করে পথের ফকির হয়ে যায়। এক্ষেত্রে আমি বলবো শুরুতেই অতিরিক্ত রিক্স না নিতে। ধীরে ধীরে যখন কেউ নিজেকে শেয়ার বাজারের সাথে পুরোনো জড়িয়ে ফেলা যাবে এবং কিছু অভিজ্ঞতা নিজের মাঝে তৈরি করে ফেলতে পারার পরই যেনো সে এই শেয়ার বাজারের সাথে নিজেকে জড়ায়। এতে করে মাত্রাতিরিক্ত ইনভেস্টেও কোনো ঝুঁকি থাকবে না। শেয়ার বাজারের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে জেনে-বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে পারলে অধিক লাভের আশায় ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রবণতা কমে যাবে।

মনোবল হারাবেন না

শেয়ার বাজারে যখন কেউ বড় মাপের কিংবা ছোট আকারের লস খায় তখন দেখা যায় মনে হতাশা দানা বাঁধে এবং মনোবল পুরোপুরি হারিয়ে যায়। এক্ষেত্রে উঠে আসাটা অনেক কঠিন হয়ে পড়ে। সুতরাং শেয়ার বাজারের যেকোনো পরিস্থিতি যখন নিজেকে প্রভাবিত করবে তখন কোনো ভাবেই নিজের মনোবল হারাবেন না। কেননা শেয়ার বাজারে উত্থান-পতন একেবারেই স্বাভাবিক ব্যাপার। সুতরাং মনোবল হারানো যাবে না কোনোভাবেই! এক্ষেত্রে একেবারে নিজের কাছে কোনো অর্থ না রেখেই কেউ যেনো শেয়ার বাজারে ইনভেস্ট করে না ফেলে। যখন শেয়ার বাজারে ইনভেস্ট করার মতো নিজের কাছে কিছু অর্থ থাকবে এবং তা লস গেলেও বড় রকমের কোনো সমস্যা হবে না ঠিক তখই এতে ইনভেস্ট করার সিদ্ধান্ত নেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ।



শেয়ার বাজারের সর্বশেষ খবর রাখুন

শেয়ার বাজারের ক্ষেত্রে কোম্পানি ফান্ডামেন্টালের বিষয়টি নূন্যতম বিবেচনাতে নিয়ে শেয়ারের দর উঠানামা সম্পর্কে সর্বশেষ খবরাখবর রাখাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিজের দুরদর্শিতা ও সৃজনশীল প্রতিভার সাথে যদি শেয়ার বাজার নিউজ থেকে নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলিকে কাজে লাগানো যায় তবে দ্রুত শেয়ার বাজার সেক্টরে নিজেকে সফল করা ইজি হবে। পাশাপাশি নিত্যনতুন বিনিয়োগের সুযোগ খুঁজে বের করতে চাইলে এই শেয়ার বাজারের সর্বশেষ খবর নিয়ে গবেষণা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ কাজ বলে আমি মনে করি।

 

ইতি কথা

সর্বোপরি ব্যর্থতার পরেও শেয়ার ব্যবসাতে লেগে থাকার মন-মানসিকতা নিয়ে আপনাকে এগিয়ে যেতে হবে। হাল ছাড়া যাবে না। শেয়ার বাজারের চরম মন্দাবস্থায়ও যাদের ভেঙে পড়ার অভ্যাস রয়েছে আশা করি এই আর্টিকেল তাদেরও কাজে লাগানো যাবে। আজকের মতো এতোটুকুই।

Facebook Comments
Md Shamim Mia
বর্তমানে দেশীয় একটি ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সিতে চাকুরিরত। টুকটাক লেখালেখির পাশাপাশি অনলাইন পেশার প্রতি ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে। নিজের সামান্য অভিজ্ঞতা থেকে সবাইকে ফ্রিল্যান্সিং পেশার সঠিক পথটা দেখাতে চাই। আশাকরি পাশে থাকবেন, দোয়া রাখবেন
https://freelancingtherapy.com
Top